আজ ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

গলাকেটে নিজের সন্তানকে হত্যা মায়ের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

 

কিশোরগঞ্জে নিজের পনের মাসের শিশু সন্তানকে গলা কেটে হত্যার দায়ে মা সালমা
বেগমকে (৩৫) যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড এবং অনাদয়ে আরো এক
বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। কিশোরগঞ্জের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ
আদালতের বিচারক মুহাম্মদ আবদুর রহিম গতকাল সোমবার বিকেলে আসামির
উপস্থিতে এ রায় দেন। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সালমা বেগম কিশোরগঞ্জ সদর
উপজেলার মারিয়া ইউনিয়নের প্যারাভাঙ্গা গ্রামের আসাদ মিয়ার মেয়ে।
মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার গুজাদিয়া ইউনিয়নের
টামনি আকন্দপাড়ার আবুল কালামের সঙ্গে বিয়ে হয় সালমার। তাদের দুটি সন্তান
ছিল। ঘটনার ৮-১০ দিন আগে দুই সন্তান তাইয়্যেবা (৪) ও মাহাথির মোহাম্মদকে
(১৫ মাস) নিয়ে বাবার বাড়িতে বেড়াতে যান। ২০১৬ সালের ৫ মার্চ সকালে বাবার
বাড়িতে সালমা বেগম দা দিয়ে শিশু সন্তান মাহাথির মোহাম্মদকে (১৫ মাস) গলা
কেটে হত্যা করে। খবর পেয়ে পুলিশ সেদিনই সালমাকে আটক করে। ওই দিনই স্বামী
আবুল কালাম বাদী হয়ে কিশোরগঞ্জ থানায় স্ত্রী সালমাকে একমাত্র আসামি করে
একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
পরের দিন সালমা আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়।
জবানবন্দিতে তিনি বলেন, শিশুপুত্রের কান্নাকাটিতে অস্থির হয়ে তিনি নিজের
ছেলেকে গলাকেটে হত্যা করেন। এ সময় তার মাথা ঠিক ছিল না বলেও জবানবন্দিতে
দাবি করেন তিনি।
পরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কিশোরগঞ্জ মডেল থানার উপ-পরিদর্শক আলমগীর
হোসেন মোল্লা একই বছরের ২৪ সেপ্টেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।
শুনানি শেষে আদালত গতকাল এ রায় দেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সৈয়দ শাহজাহান
এবং আসামি পক্ষে ছিলেন মাজহারুল ইসলাম খান বাচ্চু।

 

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ