আজ ১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কিশোরগঞ্জে করোনায় ১ জনের মৃত্যু, ১২৩ জনের শনাক্ত

কিশোরগঞ্জে করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ সংক্রমণ পরিস্থিতির অবনতি ঘটেই চলেছে। সর্বশেষ শনিবার (৩১ জুলাই) রাতে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, জেলায় নতুন করে ১২৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আগের দিন শুক্রবার (৩০ জুলাই) ১৪১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

সর্বশেষ এ রিপোর্টে মোট ৪০৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় মোট ১২৩ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে। এর বিপরীতে এদিন জেলায় মোট ৬৮ জন সুস্থ হয়েছেন। এছাড়া জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। সর্বশেষ মারা যাওয়া ব্যক্তি একজন নারী (৪৫)। তিনি কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার বাসিন্দা। তিনি কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।হাসপাতালটিতে বর্তমানে একদিনে সর্বোচ্চ ২২৯ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন। জেলায় নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া মোট ১২৩ জনের মধ্যে ভৈরব উপজেলায় সর্বোচ্চ ৫৬ জন শনাক্ত হয়েছেন।

এছাড়া বাকি ৬৭ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৫ জন, পাকুন্দিয়া উপজেলায় ১০ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ৪০ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ২ জন, নিকলী উপজেলায় ১ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ৮ জন এবং অষ্টগ্রাম উপজেলায় ১ জন শনাক্ত হয়েছে। নতুন সুস্থ হওয়া ৬৮ জনের মধ্যে ৬২ জন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার। কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কোভিড ইউনিটে বর্তমানে আক্রান্ত ও সন্দেহজনক মোট ভর্তি রোগীর সংখ্যা ২২৯ জন যাদের মধ্যে ১০ জন আইসিইউতে এবং ১৫ জন এইচডিইউতে রয়েছেন।

গত ২৪ ঘন্টায় নতুন ৪৭ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন এবং ১৭ জন ছাড়পত্র পেয়েছেন। হাসপাতালটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময় পর্যন্ত জেলায় মোট ৯১৩৭ জন শনাক্ত, ৬৬০৭ জন সুস্থ এবং ১৫৪ জন মৃত্যুবরণ করেছেন।

জেলায় মোট মৃত্যু ১৫৪ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় সর্বোচ্চ ৫৫ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৮ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ৯ জন, তাড়াইল উপজেলায় ৫ জন, পাকুন্দিয়া উপজেলায় ৯ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১১ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ৭ জন, ভৈরব উপজেলায় ২৯ জন, নিকলী উপজেলায় ৭ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ১২ জন, ইটনা উপজেলায় ১ জন এবং মিঠামইন উপজেলায় ১ জন রয়েছেন।

জেলার একমাত্র অষ্টগ্রাম উপজেলায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে কোন মৃত্যু নেই।

গত ২৪ ঘন্টায় ৬০ জন এ ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন। এ পর্যন্ত মোট ২ লাখ ১ হাজার ৪৮১ জন কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের জন্য রেজিস্ট্রেশন করেছেন। গত ২৪ ঘন্টায় ২৯২০ জন কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের জন্য রেজিস্ট্রেশন করেছেন। কিশোরগঞ্জ জেলার সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ