আজ ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দক্ষতার পুরষ্কার পেলেন কিশোরগঞ্জ মডেল থানার পরিদর্শক জয়নাল আবেদীন

 
কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি:
 
কিশোরগঞ্জ মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক জয়নাল আবেদীন একজন দক্ষ ও বিচক্ষণ কর্মকর্তা। তার বিচক্ষণতা ও দক্ষতায় কিশোরগঞ্জ মডেল থানার অনেক স্পর্শকাতর মামলার রহস্য উদঘাটন হয়েছে। সম্প্রতি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরাল ভাংচুরের ঘটনার পর কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার) এমন একটি স্পর্শকাতর মামলার রহস্য উদঘাটন ও আসামী গ্রেফতারে দায়িত্ব দেন দক্ষ পরিদর্শক জয়নাল আবেদীনের ওপর।
 
পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার) এর মতো গুণী, তীক্ষ্ণ বুদ্ধি সম্পন্ন ও বিচক্ষণ একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা মামলার দায়িত্ব দিয়ে আবারও প্রমাণ করলেন তার বিচক্ষণতা ও দক্ষতা। জয়নাল আবেদীন মামলার দায়িত্ব পাবার ২০ ঘন্টার মধ্যেই কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিকের সার্বিক সহযোগিতায় মূল রহস্য উদঘাটন ও আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন। স্পর্শকাতর এমন একটি মামলা তদন্তে রহস্য উদঘাটন ও আসামী গ্রেফতার হওয়ায় কিশোরগঞ্জ তথা দেশবাসী মনে রাখবে।
 
পুলিশ পরিদর্শক জয়নাল আবেদীনের এই অন্যন্য অবদানের জন্য বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) সকালে পুলিশ লাইন্স ড্রিল শেডে অনুষ্ঠিত মাসিক কল্যাণ সভায় তাকে স্পর্শকাতর মামলার রহস্য উদঘাটন ও আসামী গ্রেফতারে বিশেষ পুরষ্কার দেয়া হয়।
মাসিক কল্যাণ সভায় কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার) এর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. মোস্তাক সরকার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) নূরে আলম প্রমুখ।
 
উল্লেখ্য যে, পুলিশ পরিদর্শক জয়নাল আবেদীন তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক মামলায় অত্যন্ত পারদর্শী ও দক্ষ।
 

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ