আজ ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আগামী রবিবার ২৮ নভেম্বর কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত

আগামী রবিবার, ২৮ নভেম্বর কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও স্বতন্ত্র মনোনিত প্রার্থীরা সবক’টি ইউনিয়নেই অংশগ্রহণ করছেন। বিদ্রোহীদের বেশিরভাগই শক্তিশালী প্রার্থী। এদের দাপটে অনেকটাই কোনঠাসা হয়ে পড়েছেন আ’লীগ দলীয় প্রার্থীরা। এতে আওয়ামী দ‚র্গে অনেকটা তুষের আগুন লাগার মতো অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। অবস্থার সুযোগে অনেকটা সুবিধাজনক অবস্থান তৈরী
করে নিয়েছেন বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র এবং লাঙ্গলের প্রার্থীরা।

এ অবস্থায় বিদ্রোহী দমনে ব্যর্থতাই নিজেদের জন্য কাল হতে পারে বলে মনে করছে আওয়ামী লীগের তৃনম‚লের নেতাকর্মীরা। প্রতিটি ইউনিয়নেই তাদের সাথেই বিদ্রোহী বা স্বতন্ত্র প্রার্থীদের তীব্র প্রতিদ্বন্ধিসঢ়;দ্বতা হবে বলে মনে করছেন সাধারণ ভোটাররা। চৌদ্দশত ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী লড়ছেন। এরা হলেন আওয়ামী লীগ দলীয় এবি সিদ্দিক খোকা (নৌকা), আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ফারুক আহমেদ বাচ্চু (আনারস), বিদ্রোহী প্রার্থী আতাহার আলী( চশমা), ইসলামি আন্দোলন প্রার্থী আ. করিম হাতপাখা।

এদিগে লতিবাদ ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় শক্ত অবস্থানে রয়েছেন স্বতন্ত্র ২ জন প্রার্থী। এদের সাথে নৌকার হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলে মনে করছেন ভোটাররা। নৌকা ডুবাতে তারা দুইজন
আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী শরিফ উদ্দিনের পথের কাঁটা আভ্যন্তরী কোন্দলের কারণে জোরেশোরে নির্বাচনী এলাকায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. শহীদুল ইসলাম ও আ. রাজ্জাক । নৌকার প্রার্থীদের চেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা অনেক এগিয়ে রয়েছেন বলে মনে করছেন সাধারণ ভোটারগণ। কারণ হিসে তারা বলছেন ইউপি নির্বাচনে বিএনপি মাঠে না থাকায় বিএনপি সমর্থকরা স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পক্ষেই অবস্থান নিবেন। তবে মহিনন্দ ইউনিয়নের হিসেব ব্যতিক্রম।

এ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে সাবেক চেয়ারম্যাপন মোঃ ছাদেকুর রহমান নৌকা প্রতীকে লড়ছেন। তার প্রতিদ্বন্দি শক্তিশালী প্রার্থী সাবেক মডেল চেয়ারম্যান মোঃ লিয়াকত আলী লাঙ্গল প্রতীকে লড়ছেন। আর কোনো প্রার্থী না থাকায় এ দুজনের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই অনুষ্ঠিত হবে বলে কর্মী সমর্থকরা জানিয়েছে। এদিকে কিশোরগঞ্জ সদর উপরে ১১ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে সবকিছু ছাপিয়ে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে । প্রতিটি ইউনিয়নের হাট বাজার রাস্তাঘাট পোস্টারে ছেয়ে গেছে। স্বতন্ত্র প্রার্থীদের দাপটে একই রকম অবস্থা বিরাজ করছে সদর উপজেলার চৌদ্দশত ইউনিয়ন, রশিদাবাদ, মারিয়া বিন্নাটি ও যশোদল ইউনিয়নে।

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ