আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

হাওরে অশনির প্রভাবে ইরি বোরো জমি ধান নিয়ে চিন্তিত কৃষক

নিকলী প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর, নিকলী, কুলিয়ারচর, মিঠামইন, ইটনা সহ পার্শ্ববর্তী হাওর এলাকায় দুই দিন ধরে অশনির প্রভাবে কৃষকরা পাকা ধানি জমি কাটতে গিয়ে বিপাকে পড়েছেন। অনেক কৃষক হাওরে ইরি বোরো ধান কেটে জমিতে ধান পানিতে ভিজে নষ্ট হওয়ার উপক্রম হচ্ছে বলে জানা গেছে। সরেজমিন বুধবার বাজিতপুর ও নিকলীর হাওরে গিয়ে দেখা গেছে, ইরি বোরো ধানের জমি অশনির ঝড়ো হাওয়ার কারণে নদীর তীরবর্তী এলাকা অনেক জমি তলিয়ে গেছে। কৃষকরা এখন চিন্তিত অবস্থায় রয়েছে। যদি এ আবহাওয়ার প্রভাব দুই তিন দিন থাকে তাহলে কৃষকের জমি কেটে ফেলা ধানগুলো গজিয়ে যেতে পারে বলে অনেক কৃষক ধারনা করছেন। এ ছাড়া তারা মহাজনদের নিকট থেকে সুদের টাকা এনে তা পরিশোধ করা খুব কঠিন হয়ে ধাড়াবে বলে অনেকে ধারনা করছেন। এদিকে নিকলী উপজেলার সিংপুর, ছাতিরচরসহ নদী বেষ্টিত ইরি বোরো ধানের জমিগুলো নষ্ট হতে পারে বলে তারা অনুমান করছেন। অন্যদিকে বাজিতপুর উপজেলার মাইজচর, হুমাইপুর, কৈলাগের কিছু অংশ ও দীঘিরপাড় ইউনিয়নের শেয়ালদিপাড় নদী বেষ্টিত জমি গুলি অনুরুপ রূপ ধারণ করেছে।

নিকলী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ বেলায়েত হোসেন প্রতিবেদকে জানান, নিকলীর নদী বেষ্টিত ২-৩ শতাংশ জমির ফসল নষ্ট হওয়ার উপক্রম হচ্ছে বলে ধারণা করছেন।

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ