আজ ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নিসচা’র কর্মিকে লাঞ্ছিত ও কটূক্তি করায় কিশোরগঞ্জে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদন ঃ নিরাপদ সড়ক চাই(নিসচা) ধামরাই উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি ইমরান হোসেনকে লাঞ্ছিত করা ও নিসচা সম্পর্কে কটূক্তি করায় নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার আয়োজনে সংবাদ সম্মলন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহ্সপতিবার(১৬জুন)কিশোরগঞ্জ নিউজ কার্যালয়ে সন্ধ্যায় (নিসচা’র)সভাপতি মো. ফিরোজ উদ্দিন ভূইয়ার সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন নিসচা,র উপদেষ্টা সি আই পি মো. বাদল রহমান,মানব জমিনের স্টাফ রিপোর্টার মো. আশরাফুল ইসলাম, সহ-সভাপতি আব্দল হালিম তালুকদার,সাধারণ সম্পাদক শফিক কবীর,সহ-সম্পাদক মো. এমদাদুল ইসলাম সুমন,সাংগঠনিক সম্পাদক মো.শহিদুল ইসলাম খোকন, ,অর্থ সম্পাদক সাংবাদিক ফারুকুজ্জামান, সদস্য মো.রুহুল আমিন,লুৎফুল কবীর প্রমুখ।

 

সভাপতির বক্ত্যবে বলেন যানজট নিরসনে উল্টো পথে আসা গাড়ীগুলোর গতিপথ ঘুরিয়ে সঠিক ও নির্দিষ্ট লেনে চলাচলের জন্য নিজ উদ্যোগে দায়িত্ব পালন করার সময় অনিয়মকারী ধামরাইস্থ প্রতীক সিরামিকস লিঃ এর কতিপয় কর্মী কর্তৃক জনপ্রিয় জাতীয় সামাজিক সংগঠন নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) ধামরাই উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি মোঃ ইমরান হোসেনকে আক্রমণ ও শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা এবং নিরাপদ সড়ক আন্দোলন সম্পর্কে কটুক্তি করার তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি।তিনি দোষীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।উল্লেখ্য গত ১৩ই জুন সোমবার আনুমানিক সকাল ৮ টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের নয়ারহাট-ইসলামপুর অংশে মাছের আড়ৎ, বালুর গদির ট্রাক চলাচল এবং অবৈধ গাড়ী পার্কিং এর ফলে মহাসড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। ঠিক ঐ সময় প্রতিদিনের মত নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) ধামরাই উপজেলা শাখার সহ সভাপতি জনাব ইমরান হোসেন তার কর্মস্থল উত্তরায় যাচ্ছিলেন। দীর্ঘ যানজট দেখে তিনি উল্লেখিত স্থানে নেমে পড়েন এবং যানজট নিরসনে উল্টো পথে আসা গাড়ী গুলোর গতিপথ ঘুরিয়ে সঠিক ও নির্দিষ্ট লেনে চলাচলের জন্য কাজ শুরু করেন। তাতে অনেক গাড়ী তাদের গতিপথ ঘুরিয়ে নির্দিষ্ট লেনে নিলেও প্রতীক সিরামিকস লিঃ কোং এর একটি স্টাফ বহনকারী মাইক্রোবাস যার নাম্বার (ঢাকা মেট্রো-চ-৫৩-৩৪৬৮) তার কথায় গুরুত্ব না দিয়ে তারা জোরপূর্বক উল্টো পথে যেতে চাওয়ায় ইমরান তাদের গাড়ীর গতিপথ রোধ করেন এবং বাধা দেন। তাতে তারা ইমরানের উপর চড়াও হন, বিভিন্ন হুমকি ধামকি, ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে এক পর্যায়ে উল্লেখিত মাইক্রোবাসে তাকে অপহরণ করে প্রতীক সিরামিক লিঃ এর ফ্যাক্টরীতে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে শারীরিক ভাবে হেনস্থা করা হয়, তার মোবাইল ফোন, অফিসের আইডি কার্ড ছিনিয়ে নেয়া হয়। এছাড়াও তার কাছ থেকে ক্ষতি পূরণ হিসেবে জোরপূর্বক দশ হাজার টাকা আদায় করে তাকে ছেড়ে দেয়। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং দোষীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তির দাবীতে নিসচা কেন্দ্রীয় কমিটিসহ সারাদেশে নিসচা শাখা সমুহ প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধনের আয়োজন অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন।

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ