আজ ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৩১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পাকুন্দিয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার পাটুয়াভাঙ্গা ইউনিয়নের মধ্য সাটিয়াদি সারো বাড়ীর নবম শ্রেণীর ছাত্রী পারুল আক্তার মিতু (১৫) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।
নিহত পারুল আক্তার মিতু মধ্য সাটিয়াদি সারো বাড়ীর নাছির উদ্দিনের মেয়ে। সে পাটুয়াভাঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ছিল।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পাটুয়াভাঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আ: আহাদ জানান গতকাল শুক্রবার (১৭ জুন) দুপুরে জুমার নামাজের সময় তার বাবা নাছির উদ্দিন জুমার নামাজ পড়তে যান ও মিতুর মা মেডিকেলে যান। পরে নামাজ থেকে এসে তার বাবা বাড়িতে ঘরের আড়ার সাথে গলায় দড়ি/ ওড়না পেঁচানো মিতুকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। তবে আত্মহত্যার কোন কারণ জানা যায়নি।
পাকুন্দিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সারোয়ার জাহান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ না থাকায় লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ