আজ ১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

চলচ্ছিত্রের আলোচিত জায়েদ খানকে আজীবন বহিষ্কার চাইলেন পরিচালক ঝন্টু

জায়েদ খান ও ওমর সানির ঘটনায় কয়েকদিন ধরে উত্তাল চলচ্চিত্রপাড়া। গত কয়েকদিনের বিভিন্ন আলোচনা-সমালোচনা প্রসঙ্গে এবার মুখ খুললেন বরেণ্য নির্মাতা দেলোয়ার জাহান ঝন্টু।

এই বরেণ্য পরিচালক এবার দাবি করলেন, জায়েদ খান মৌসুমী এবং ওমর সানীর জন্য দেশের মানুষের কাছে চলচ্চিত্রের মানুষরা অপমানবোধ করছেন। এমনটি লিখেন সম্প্রতি জায়েদ-মৌসুমী-ওমর সানিকে নিয়ে জায়েদ খানকে আজীবন বহিষ্কার দাবিসহ নিজের ফেসবুকে একটি চিরকুট পোষ্ট! তাতে যোগ করেছেন তিনজনের ছবি এবং লিখতে দেখা গেছে, শিল্পী জায়েদ খান এর কর্মকাণ্ডে আমরা গোটা চলচ্চিত্রের মানুষ এখন বাহিরে মুখ দেখাতে পারছিনা। এখন আমরা মানুষের কাছে নিন্দিত হয়েছি, নিগ্রিত হয়েছি। একেবারে ছোট হয়ে গেছি। তাই আমি দৃঢ় কণ্ঠে বলছি, শিল্পী জায়েদ খানকে চলচ্চিত্রের সমস্ত কর্মকাণ্ডে থেকে চিরদিনের জন্য বহিষ্কার করা উচিৎ।

মৌসুমীকে নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেন এই নির্মাতা। তিনি আরও লিখেন, মৌসুমীকে নিয়ে কোন প্রযোজক যেনো কোন চলচ্চিত্র নির্মাণ না করেন সেজন্য অনুরোধ করেন।

এর আগেও তিনি মূলত এ ঘটনার জন্য ওমর সানিকেই দোষী মানছেন। তার বক্তব্য, ওমর সানির বিচার আগে হওয়া উচিত৷ কেন স্ত্রীকে সে শাসনে রাখতে পারবে না? কেন তার অভিযোগের পর স্ত্রী তারই বিরুদ্ধে যাবে? ওর মতো নায়ক এদেশে কয়টা?

এর আগে এই পরিচালক বলেন, মৌসুমীকে নিয়ে কি বলবো নিজেই আসলে বুঝে উঠতে পারছি না। জায়েদ খানের মতো ছেলের সাথে ওর কিসের বন্ধুত্ব? সানি-মৌসুমীর উচিত এসব ঝামেলা মিটিয়ে নেয়া। নিজেরা বসে আলাপ করে সব ভুল সংশোধন করা। আমি ওমর সানির একটা কথায় খুশি হয়েছি, সে তার ছেলেমেয়েকে অভিভাবক মেনে তাদের উপর সব সিদ্ধান্ত ছেড়ে দিয়েছে৷ সন্তানরা বিচারক হলে তাদের সংসার ও তাদের জন্য ভালোই হবে আমার মনে হয়।

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ