আজ ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কিশোরগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু; মরদেহ গুম করার চেষ্টা

কিশোরগঞ্জে বেসরকারী একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে সিজারের সময় ভুল চিকিৎসায় রুপালী (২২) নামে এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ করেছে স্বজনরা। এ নিয়ে স্বজনরা ক্লিনিকে হট্টগোল শুরু করলে মরদেহ গুম করে পালিয়ে যায় ক্লিনিক কতৃপক্ষ। পরে পুলিশ গিয়ে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের মাঠ থেকে মরদেহ উদ্ধার করে। রবিবার (২২ জানুয়ারি) রাতে সদর উপজেলার যশোদল ইউনিয়নের আল হেরা ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টার এন্ড হসপিটালে এ ঘটনা ঘটে। রুপালী সদর উপজেলার চৌদ্দশত ইউনিয়নের বড়খালের পাড় গ্রামের প্রবাসী মো. পলিন ইসলামের স্ত্রী।

রূপালীর মরদেহ

রুপালীর মামা শশুর মোঃ শরীফ, দেবর পাভেল ও মামা আতিকুল্লাহ বলেন,
আমাদের মেয়ের লাশ মৃত্যুর পর আমাদেরকে না জানিয়ে হাসপাতালের লোকজন সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের মাঠে রেখে পালিয়ে যায়।আমরা এই ঘটনার সঠিক বিচার চাই।

কিশোরগঞ্জের ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক মো. হেলাল উদ্দিন বলেন, রবিবার (২২ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ১২টার দিকে একটি নবজাতক হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে রুপালী নামে এক নারীর মরদেহ হাসপাতালে নিয়ে আসলে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্ত শেষে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মোখলেছুর রহমান বলেন, সংবাদ পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। নবজাতককে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে প্রেরণ করি। পরে স্থানীয়দের মাধ্যমে জানতে পারি রুপালীর মরদেহ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মাঠে রয়েছে। আমরা গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করি। এ ঘটনায় অবহেলা জনিত চিকিৎসার অভিযোগে রুপালীর মামা শশুড় বাদী অভিযোগ দায়ের করেছেন।

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ