আজ ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ভৈরবে চাঞ্চল্যকর সোনায়েত উল্লাহ হত্যা মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার

ডেস্ক :কিশোরগঞ্জের ভৈরবে চাঞ্চল্যকর সোনায়েত উল্লাহ হত্যা মামলার প্রধান আসামী মোঃ রেজাউল করিম শামীম (৪৫) কে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১৪।

শুক্রবার দিবাগত রাত১২টার দিকে ময়মনসিংহের নান্দাইল এলাকা হতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃত রেজাউল করিম উরফে শামীম ময়মনসিংহের নান্দাইল থানার সিংরইল গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে। তিনি ভৈরব পৌর শহরের নিউটাউন এলাকার মর্তুজা মিয়ার বাড়ির কেয়ারটেকার হিসেবে কাজ করতেন।

এ বিষয়ে শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে সিপিসি-২, ভৈরব ক্যাম্প স্কোয়াড কমান্ডার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আক্কাছ আলী এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, র‌্যাব-১৪ ভৈরব ক্যাম্প ও ময়মনসিংহ সদর কোম্পানীর যৌথ আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ময়মনসিংহের নান্দাইল গ্রামের বাড়িতে বিশেষ অভিযান চালায়। এসময় ভৈরবের চাঞ্চল্যকর সোনায়েত উল্লাহ উরফে সোনা মিয়া হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত প্রধান আসামি মো. রেজাউল করিম উরফে শামীমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি আরও জানান, গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে কিশোরগঞ্জের ভৈরব থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। এছাড়া এই মামলার অভিযুক্ত দুই নারী ঘটনার দিন পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে।

উল্লেখ্য, ভৈরব পৌর শহরের নিউটাউন এলাকার মো. সোনায়ত উল্লাহ গত ২১ ফেব্রুয়ারি তারিখে গাজীপুর জেলা কারাগার হতে জামিনে ছাড়া পেয়ে বিকালে বাড়িতে আসেন এবং তিনি রাত ৮টার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। পরে ভোর ৪টার দিকে ভিকটিমের ছেলে আলভী জানতে পারে তার বাবা ভৈরব থানার নিউটাউন এলাকার রেজাউল করিম শামীমের তত্বাবধানে থাকা মর্তুজা মিয়ার বাড়ির (সাবেক অনির্বাণ স্কুল) ০৩ নম্বর কক্ষে গুরুতর জখম অবস্থায় পড়ে আছেন। পরে তারা ভিকটিম সোনায়েত উল্লাহকে ভৈরবের সাঈদ ইউসুফ মেমোরিয়াল হাসপাতাল নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনার পর থেকে মো. রেজাউল করিম উরফে শামীম পলাতক ছিলেন। পরবর্তীতে মৃতের ছেলে রেহানুর রহমান আলভী বাদী হয়ে ভৈরব থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ