আজ ১লা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কিশোরগঞ্জে চিকিৎসকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

জেলার হোসেনপুরে আরিফুল ইসলাম (২৯) নামে এক চিকিৎসকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
শনিবার (৫ আগস্ট) দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে পৌর সদরের ঢেকিয়া এলাকার ভাড়া বাসা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
মৃত ডা. আরিফুল ইসলাম মিঠামইন উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাসিন্দা রফিকুল ইসলামের ছেলে। তিনি হোসেনপুর পৌর সদরের ফায়ার সার্ভিসের পূর্বপাশের মডার্ন জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক।
আরিফুলের বড় ভাই আশরাফুল ইসলাম রাজিব জানান, তার ছোট ভাই ২০২১ সালের ১১ ডিসেম্বর পাকুন্দিয়া উপজেলার ডা.শাহিন সুলতানা মীরাকে বিয়ে করেন। বিয়ের বছরখানেক পর থেকে স্বামী-স্ত্রী দুজন মিলে শ্বশুরবাড়িতে মডার্ন জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার নামে একটি ক্লিনিক চালু করেন। তারা দুজন একটি বাসায় ভাড়া ওঠার কিছুদিন পর থেকে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়। প্রায়ই তাদের মধ্যে ঝগড়াবিবাদ হতো। ঝগড়া হলেই মীরার বড় ভাই ফোন করে জানাতো। আজ আর কোনোকিছু জানায়নি। হঠাৎ করে রাত পৌনে ২টার দিকে থানা থেকে ফোনে জানানো হয়, আমার ভাই আত্মহত্যা করেছে।
নিহতের ভাই দাবি করেন, আমার ভাই আত্মহত্যা করতে পারে না। তাকে মীরা ও তার ভাইয়েরা পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যার নাটক সাজিয়েছে। এই হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই।
হোসেনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান টিটু বলেন, পুলিশ যখন মরদেহ উদ্ধার করে তখন ঘরের দরজা ভেতর থেকে লাগানো ছিল। আরিফুলের মরদেহ ফ্যানের সঙ্গে গামছা প্যাঁচানো অবস্থায় ছিল। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, এটি আত্মহত্যা। আরিফুলের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে।

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ