আজ ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রাজনৈতিক সমঝোতায় আওয়ামীলীগ নির্বাচন করতে চাইবে!অধ্যাপক আকাশ

স্টাফ রিপোর্টার : চলমান রাজনীতি ও অর্থনৈতিক সংকট এবং উত্তরণ শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মতবিনিময় সভায় নির্বাচন কেন্দ্রিক সম্ভাবনা নিয়ে ঢাবির অর্থনীতি বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক এম এ আকাশ বলেন, একটা সম্ভাবনা হচ্ছে যে, আওয়ামী লীগ যেভাবেই হোক একটা নির্বাচন করবে!সেই নির্বাচনটা করলো এমনভাবে, যে কেউ তাকে বলতে পারলো না যে নির্বাচনে কারচুপি করেছে,বিএনপিকে ভোটে দাঁড়াতে বাঁধা দিয়েছে,কোন ভোটারকে আটকে দিয়েছে।এই রকম করে একটা নির্বাচন শেখ হাসিনা করতে পারে।বিএনপি এখন পর্যন্ত বলছে নির্বাচনে অংশ নেবে না কিন্তু বিএনপি গনঅভ্যুত্থান করে এই নির্বাচন ঠেকিয়ে দিতে পারবে না যদি না তীব্র অর্থনৈতিক সংকট সৃষ্টি হয় অর্থাৎ আমদানি ফেইল করে,নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম ৫০শতাংশ উঠে যায়,সরকার প্রচুর টাকা ছাপায় এবং সেই টাকা ছাপিয়ে জিনিসপত্রের দাম আরও বাড়িয়ে দেয়।এক ডলারের দাম যদি ১৫০টাকা হয়ে যায় এই লক্ষণগুলো যাচাই করলে দেখা যাবে,যদি এমন হয় তাহলে শেখ হাসিনা ঋণ শোধ করতে পারবে না,তখন সরকার নিজেকে দেউলিয়া ঘোষণা করতে বাধ্য হবে এবং এইটা ডিসেম্বরের মধ্যেই হতে পারে কারণ ডিসেম্বরে প্রথম কিস্তি বা দ্বিতীয় কিস্তি আইএমএফ এর বিল পরিশোধ করতে হবে। বিএনপি হয়তো সেই ভরসায় আছে যে আমি গনঅভ্যুত্থান করতে না পারি, আমার পক্ষে জণগন না আসতে পারে কিন্তু আন্তর্জাতিক পরিবেশ ও অর্থনৈতিক পরিবেশ যদি প্রতিকূল হয় আওয়ামী লীগ তখন একটা সংকটে পড়বে।বিএনপি ক্ষমতায় আসবে কিভাবে তা জানে না কিন্তু তারা ভাবছে আওয়ামী লীগ না থাকলে বিএনপি ভাবছে তাদের ছাড়া বিকল্প নাই।

তিনি আরও বলেন,আওয়ামী লীগ একটা সমঝোতা ভিত্তিক নির্বাচন করবে চাইবে।সেখানে তৃণমূল বিএনপি,জামায়াতের একটা অংশ,হেফাজতের একটা অংশ থাকবে,কমিউনিস্ট পার্টিকেও রাতের বেলা ডেকে নিয়ে অফার দিবে কিন্তু আমরা এইসব নির্বাচনে যাব না।আমরা সমঝোতার কোন নির্বাচনে যাব না।এই সমঝোতার নির্বাচন হওয়ার পর যদি অর্থনৈতিক সংকট হয় তাহলে সেই কাঠামো আওয়ামী লীগ পরিবর্তন করতে পারবে না শ্রেণীভিত্তি না পাল্টালে ।অর্থনৈতিক সংকট আজ না হয় কাল হবেই।নির্বাচনের আগে হোক বা পরে হোক।

শুক্রবার (২৯সেপ্টেম্বর) বিকেলে কিশোরগঞ্জ জেলা কমিউনিস্ট পার্টির কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভায়
প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থেকে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এম. এম আকাশ এসব মন্তব্য করেন।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি,কিশোরগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি কমরেড আবদুর রহমান রুমি’র সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন,সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. এনামুল হক,কিশোরগঞ্জ জেলা কমিটির সদস্য ডা. এনামুল হক ইদ্রিস,সেলিম উদ্দিন খান,আবুল কাশেম মাস্টার,নুরুল হক ভূঁইয়া, ফিরোজ উদ্দিন ভূইয়া, স্বপন কুমার বর্মন,বাবুল রেজা প্রমুখ।

 

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ