আজ ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সরকারকে পদত্যাগের আলটিমেটাম ইসলামী আন্দোলনের

সরকারের পতন ও ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার দাবিতে বিএনপিসহ সব বিরোধী দলের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে সমর্থনের ঘোষণা দিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। সেইসঙ্গে আগামী ১০ নভেম্বরের মধ্যে সরকারকে পদত্যাগ করে প্রতিনিধিত্বশীল আন্দোলনরত রাজনৈতিক দলের সমন্বয়ে গঠিত জাতীয় সরকারের অধীনে ক্ষমতা হস্তান্তরের আলটিমেটাম দিয়েছে দলটি।

শুক্রবার (৩ নভেম্বর) রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দলটির মহাসমাবেশে এই ঘোষণা দেন দলের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

বিরোধী দলের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে সমর্থন জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী ১ সপ্তাহের মধ্যে রাজনৈতিক কারণে কারারুদ্ধ বিএনপির সব নেতাদের মুক্তি ও রাষ্ট্রপতিকে সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপের উদ্যোগ নিতে হবে। দাবি না মানলে সরকার পতনের দাবিতে আন্দোলনরত বিরোধীদলের সঙ্গে আলোচনা করে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

১০ নভেম্বরের মধ্যে আওয়ামী লীগ সরকারকে পদত্যাগ করে জাতীয় সরকার গঠনের দাবি জানিয়ে ইসলামী আন্দোলনের আমির বলেন, দেশের সরকার যখন যা খুশি করবে আর এ দেশের জনগণ নাকে তেল দিয়ে ঘুমাবে, তা হতে পারে না। ২০১৪ আর ১৮ সালের মতো সাজানো নির্বাচন এই দেশে আর হতে দেওয়া হবে না। আজ ৩ নভেম্বর। আজ সরকারের মেয়াদ শেষ। এই কারণেই আজকের দিনকে মহাসমাবেশের তারিখ নির্ধারণ করেছি।

দলের সিনিয়র নায়েবে আমির মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই বলেন, সরকার ক্ষমতার মজা পেয়ে গেছে। গোটা দেশের মানুষ জেলখানায় আবদ্ধ। এদেশের মানুষের স্বাধীনতা নাই। এই জেলের তালা ভাঙতে হবে। কোন ছলচাতুরি চলবে না। আমরা কারো বিরুদ্ধে নই। এই আন্দোলন যারা ভোট দিতে চায় তাদের জন্য।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, নিরেপেক্ষ নির্বাচন না হওয়ায় বিদেশি শক্তি নাক গলাচ্ছে। আপনি ব্যাকডোর দিয়ে ক্ষমতায় আসার চেষ্টা করলে আমরা লড়াই করবো।

মহাসমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন দলের উপদেষ্টা মাওলানা আব্দুল আউয়াল, প্রেসিডিয়াম সদস্য আশরাফ আলী আকন্দ, যুগ্ম-মহাসচিব ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, উপদেষ্টা মুফতি এসহাক মো. আবুল খায়ের এবং ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশের সভাপতি আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ