আজ ১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ভৈরবে বিপুল পরিমান ভারতীয় পণ্য পাচারকালে গ্রেফতার ৩

 

জেলার ভৈরবে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় পণ্য পাচারকালে তিনজনকে গ্রেফতার র‍্যাব। গতকাল ভৈরব পৌর শহরের নাটালের মোড় এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় পণ্যসামগ্রী পাচারকালে তিন চোরাকারবারিকে আটক করেছে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, ভৈরব ক্যাম্প। পাশাপাশি একটি বাসও জব্দ করা হয়েছে।

 

আটকৃতরা হলো- নোয়াখালী জেলার সুনাইমুরী থানার কৈয়া এলাকার খোরশেদ আলমের ছেলে মো.সুজন (৩৩), মাগুরা জেলার শালিকা থানার হাজরাহাটি এলাকার মো. রিফাতের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৪৩), মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানার শিংপাড়া আ. বারেক শেখের ছেলে মাসুম হোসেন (৪১)।

জানা যায়, র‌্যাব -১৪, সিপিসি-২, ভৈরব ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এদিন সকালে ভৈরবের নাটালের মোড় এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ঢাকাগামী লেনের পাকা রাস্তার উপর অভিযান পরিচালনা করে তিনজনকে আটক করা হয়। এসময় তাদের দখলে থাকা ১টি বাস তল্লাশি করে ২৩০ কেজি ভারতীয় চিপস,  ৫৯৯ কেজি ভারতীয় কাজু বাদাম, ২১৬০ কেজি ভারতীয় কাঁচা সুপারি, ১৯২ কেজি বিশেষ ধরনের ভারতীয় কাউনের চাউল, ১৩৫ কেজি লেবু, ১৪ কেজি ভারতীয় ফুটস, ১৪০ কেজি ভারতীয় চিনি, ৩টি মোবাইল, নগদ ৫০০ টাকা ও, ১টি বাস উদ্ধার করে জব্দ করা হয়।

এ বিষয়ে ভৈরব ক্যাম্পের স্কোয়াড কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার মুহাম্মদ জাহিদ হাসান জানান, আটকৃতরা চোরাচালান চক্রের সদস্য। তারা দীর্ঘদিন যাবত সিলেট জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা হতে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে চোরা চালানের মাধ্যমে ভারতীয় বিভিন্ন ধরনের পণ্য দেশের অভ্যন্তরে বিভিন্ন স্থানে বিক্রয় করে। উক্ত আসামিগণ চোরাচালান ব্যবসা পরিচালনা করার জন্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে প্রতিনিয়ত অভিনব কৌশল অবলম্বন করতো। চোরাচালানের বিরুদ্ধে র‌্যাবের এই ধরনের অভিযান ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে। উক্ত আসামিদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করে ভৈরব থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ