আজ ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কিশোরগঞ্জ সদরে চেয়ারম্যান প্রার্থী মামুনের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মামুন আল মাসুদ খান সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ঘোষণা করলেন আগামী (ভিশন টুয়েন্টি টুয়েন্টি নাইন নির্বাচনী ইশতেহার)।

বৃহস্পতিবার(২৫ এপ্রিল) বিকেলে কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের গাইটাল তার নিজ বাসায় এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বর্তমান চেয়ারম্যান ও প্রার্থী মামুন আল মাসুদ খান কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার সকল ধর্ম-বর্ণ-ধনী-দরিদ্র নির্বিশেষে সকল ভোটারবৃন্দ ও উপস্থিত সাংবাদিকদের সালাম জানিয়ে বলেন প্রত্যেকটি জনপ্রতিনিধির একটা লক্ষ্য ও একটা ভিশন থাকতে হয়। আমি ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচনে আমার একটা ডিশন ছিলো, বিগত চেয়ারম্যান নির্বাচনেও আমার ভিশন ছিলো। বাস্তবায়নে যে ভিশনে পৌঁছার জন্য আমি প্রাণপর্ণ চেষ্টা করেছি। মাননীয় সংসদ সদস্য ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি আপার বরাদ্ধ এবং উপজেলা পরিষদের বরাদ্দে ৭১ কিলোমিটার নতুন রাস্তা পাকা করা, ১২৯ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কার করা, ২২৮ মিটার ব্রীজ কালভার্ট করা, প্রায় ৭শ’টি মসজিদ মাদ্রাসায় উন্নয়ন বরাদ্দ দেওয়া, ৫২টি গোরস্তান-মন্দির-শ্মশানের উন্নয়ন করা, ২৫টি ঈদগাহ সংস্কার করা ও ৬ কিলোমিটার খাল খনন করা, কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি ও কৃষকদের প্রণোদনা প্রদান করা, গভীর ও অগভীর নলকূপের মাধ্যমে এবং ড্রেন সংস্কারের মাধ্যমে সেচের ব্যবস্থা করা, সবজি চাষীদের উৎসাহিত করতে জৈব প্রযুক্তির ব্যবহার বৃদ্ধি করা, কেমিক্যালমুক্ত সবজি উৎপাদনে পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি ব্যবহার করা, স্বাস্থ্য খাতে বিনামূল্যে অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস দেওয়া,
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ডিজিটাল মনিটরিংয়ের আওতায় নিয়ে আসা, পরিবেশ উন্নয়নে বনায়ন সৃষ্টিতে বৃক্ষ রোপন করা, দৃষ্টিনন্দন ফুলের বাগান করে পরিবেশ উন্নত করা ইত্যাদি কর্মকান্ডের মাধ্যমে আমার ভিশন পূরণ করতে চেষ্টা করেছি। অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সিসি ক্যামেরা দিয়েছি। শিক্ষার উন্নয়নে বরাদ্দ দিয়েছি। উপজেলা পরিষদকে দৃষ্টিনন্দন করে সাজিয়েছি। কিন্তু আরো অনেক কিছু রয়ে গেছে অপূর্ণ। আমার লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য সদর উপজেলার প্রত্যেকটি ইউনিয়নকে আমি উপজেলা পরিষদ কম্পাউন্ডের মত সাজাবো। আমার উপজেলার গ্রামগুলো হবে বর্ণিল ছবির মতো সাজানো-গোছানো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ভিশনকে অনুসরণ করে আমিও পরিচ্ছন্ন পরিপাটি ডিজিটাল স্মার্ট কিশোরগঞ্জ গড়ে তুলতে চাই।

সে লক্ষে আমার ভিশন টুয়েন্টি টুয়েন্টি নাইন প্রণয়ন করে ৮ টি নির্বাচনী ইশতেহার সদর উপজেলাবাসীর কাছে তুলে ধরছি।

এরমধ্যে শিক্ষা ব্যবস্থাকে ডিজিটালাইজেশন সহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে রেখে কৃষি ব্যবস্থার উন্নয়ন, স্বাস্থ্য ব্যবস্থার প্রসার, কর্মসংস্থানে বেকারত্ব দূরীকরণ, পরিবেশ উন্নয়ন, গ্রামীণ অবকাঠামোর উন্নয়ন, মাদকমুক্ত সমাজ ব্যাবস্থা ও সামাজিক নিরাপত্তা প্রকল্প

এই ভিশন টুয়েন্টি টুয়েন্টি নাইন বাস্তবায়িত হলে পুরণ হবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা হবে সারা বাংলাদেশের মধ্যে একটি রোল মডেল উপজেলা। আর এটি কোন অলিক স্বপ্ন নয়। এই স্বপ্নের বাস্তবায়নে আমরা আপনাদের একান্ত সহযোগিতা কামনা করছি। আগামী নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আপনাদের মূল্যবান ভোট প্রদান করে স্বপ্নের সারথী হওয়ার বিনীত আবদার করছি। পরিশেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদান করে, জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ চিরজীবী হোক বলে সমাপ্ত ঘোষণা করেন।

এসময় নির্বাচন পরিচালনা কমিটির উপদেষ্টা অধ্যক্ষ শরীফ আহমদ সাদী, সদস্য সচিব মোস্তাফিজুর রহমান ভূঁইয়া, জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য এডভোকেট সানোয়ার হোসেন রুবেল সহ বিভিন্ন ইউনিয়নের নেতাকর্মী ও সমর্থকগণ উপস্থিত ছিলেন

Comments are closed.

     এই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ